>যদিও আমি ডাক্তারী পড়ি তবে আমি যৌন বিশেষজ্ঞ নই তারপরও মাঝে মাঝে পরিচিতরা কিছু যৌন সমস্যার কথা জানায়। অনেকে সমস্যাগুলোর সমাধান করতে না পেরে নানামুখি অপচিকিৎসার দ্বারস্থ হয়ে নিজের ক্ষতি করে বসছে।
সমস্যা ১ঃ আমার যৌন ক্ষমতা কম।
সমাধানঃ ক্ষমতা কম বলতে সাধারণত সবাই বেশীক্ষণ ইন্টারকোর্স (মিলন) করতে না পারাকে ইন্ডিকেট করেন। এটা কোনো সমস্যা নয়। ইজেকশন (বীর্জশ্খলন) মানসিক প্রক্রিয়া দ্বারা প্রভাবিত হয়। উত্তেজিত অবস্থায় দ্রুত ইজেকশন হয় আবার টেনশনে বা অন্যমনস্ক থাকলে দীর্ঘ বিরতির পর ইজেকশন হয়। প্রাকটিসের মাধ্যমে রোগী নিজেই সমস্যার সমাধান করতে পারেন।

সমস্যা ২ (ক) আমার মাস্টারবেট (হস্তমৈথুন) করার অভ্যাস আছে। এজন্য আমার সেক্স পাওয়ার কমে যাচ্ছে। শরীর দুর্বল হচ্ছে।
সমাধানঃ মাস্টারবেটকে সাধারণ ঘটনা হিসেবে মেডিকেল সাইন্সে বিবেচনা করা হয়। ক্লিনিক্যালী এর কোনো ক্ষতিকর প্রভাব পাওয়া যায়নি। বরং কিছু কিছু চিকিৎসা বিজ্ঞানী একে স্বাস্থ্যের জন্য ভালো এবং টেস্টিস ক্যানসারকে প্রতিরোধ করে বলে মত দিয়েছেন।
মাস্টারবেটের সাথে সেক্স পাওয়ার কমার কোনো সম্পর্ক নেই। শারীরিক দুর্বলতা সৃষ্টির ক্ষেত্রে ক্লিনিক্যালি এর কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি। তবে ধর্মীয় বিবেচনায় এটা নিষিদ্ধ।
সমস্যা ২ (খ) ঃ মাস্টারবেট (হস্তমৈথুন) করার ফলে ব্রণ হয়, হাতে পায়ে লোম গজায় কথাটা কি সত্য?

সমাধানঃঃ পুরোপুরি ১০০ ভাগ মিথ্যা কথা।
সমস্যা ৩ঃ আমি ২/১ মিনিটের বেশী স্পার্ম ধরে রাখতে পারি না, আমার কি চিকিৎসার দরকার?
সমাধানঃঃ না দরকার নেই। উত্তেজিত অবস্থায় ২-১ মিনিটেই ইজেকশন (বীর্জশ্খলন) হতে পারে যা স্বাভাবিক অবস্থায় আরো দেরীতে হয়। মাস্টারবেশন ও সেক্স দুটো ভিন্ন জিনিষ। মাস্টারবেশনের সময় শুধু কামভাব নিবারিত হয় বলে দ্রুত বীর্যশ্খলন হয় কিন্তু সেক্স ভালোবাসার সাথে রিলেটেড। বিয়ের পর ১ম ১মাস আপনি এধরণের সমস্যায় পড়তে পারেন তবে প্রাকটিসের মাধ্যমে নিজেই তা সারিয়ে ফেলতে পারবেন। চিকিৎসার দরকার হবে না।

সমস্যা ৪ঃ নরমাল সেক্স টাইম কত? কতক্ষণ সেক্স করলে কোনো মেয়েকে সেটিসফেকশন দেয়া সম্ভব?
সমাধানঃঃ মেয়েদের সেক্সের ধরণ ও ছেলেদের ধরণ আলাদা। ছেলেদের সেক্স বীর্জপাতের সাথে সম্পর্কিত, মেয়েদের ক্ষেত্রে ব্যাপারটা মানসিক। ক্লাইটোরিয়াস নামের একটি অংশ মেয়েদের উত্তেজনা প্রদান করে। একটি নির্দিষ্ট সময় পর উত্তেজনা প্রশমিত হয় ব্যাপারটিকে অর্গাজম বলে। মেয়েদের ক্ষেত্রে টাচিং, রাবিং, কিসিং ইত্যাদি প্রাথমিক ঘটনা থেকেই সেক্স শুরু হয়। উত্তেজিত থাকলে তারা ২-১ মিনিটেই সেটিসফেকশন পেতে পারে। উত্তেজনা না থাকলে ঘন্টার পর ঘন্টা তারা আনসেটিসফাই থাকতে পারে। তাদের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট কোনো ধরাবাধা সময় নেই।
সমস্যা ৫ঃ মাঝে মাঝে আমার পেনিস দিয়ে পিচ্ছিল কিছু তরল বের হয়। এটা কি সমস্যা?
সমাধানঃঃ না সমস্যা নয়। বাংলায় এগুলোকে যৌনরস বলে। উত্তেজিত অবস্থায় এটা বের হয়ে পেনিসকে পিচ্ছিল করে যাতে পেনিস সহজে ভ্যাজাইনাতে প্রবেশ করে।

সমস্যা ৬ বিবাহিত জীবনে সুখি হবার উপায় কি?
সমাধানঃঃ সঠিক ট্রিকস জানা থাকলে যেকেউ সুখি হতে পারে। টোটকা ওষুধ বা ভায়েগ্রা জাতীয় মারাত্মক ক্ষতিকর কোনো ওষুধ সেবন করবেন না। একটি সার্থক সেক্স অনেকাংশেই নির্ভর করে উভয়ের ভালোবাসার উপর কারণ পুরো ব্যাপারটি মানসিক। যৌন জীবনে বিশ্বস্থ থাকুন। সিফিলিস ও এইডসের মত ভয়াবহ রোগ থেকে দূরে থাকুন।